দিল্লিকে হারিয়ে আইপিএল চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই

 প্রকাশ: ১১ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৩১ পূর্বাহ্ন   |   খেলাধুলা

দিল্লিকে হারিয়ে আইপিএল চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই



ফাইনালের আগে এবারের আইপিএলে তিন বারের সাক্ষাতে তিন বারই মুম্বইয়ের কাছে হেরেছিল দিল্লি। ফাইনালেও ছবিটা বদলালো না। দিল্লিকে ৫ উইকেটে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বার আইপিএল জিতে নিল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। সব মিলিয়ে রেকর্ড পাঁচ বার ট্রফি ঘরে তুলল মুম্বইয়ের দলটি। ২০০ তম আইপিএল ম্যাচ খেলতে নেমে ব্যাট হাতে রান সঙ্গে আইপিএল ট্রফি জিতে স্মরণীয় করে রাখলেন মুম্বাই ইন্ডিয়ানস অধিনায়ক রোহিত শর্মা।


অফ ফর্মে থাকা রোহিত শর্মা ফাইনালে একেবারে চেনা মেজাজে। ১৫৭ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই মারমুখী মেজাজে পাওয়া গেল কুইন্টন ডিকক এবং রোহিত শর্মাকে। ডিকক ১২ বলে ২০ রানে ফিরে গেলেও সূর্যকুমার যাদবের সঙ্গে জুটি বেঁধে এগোতে থাকেন রোহিত শর্মা। ১৯ রানে নিজের উইকেট দিয়ে এলেন সূর্যকুমার যাদব। রোহিতের সঙ্গে রান নিতে গিয়ে তালমিল না হওয়ায় অধিনায়ককে বাঁচিয়ে রান আউট হন সূর্য। গোটা আইপিএলে বল হাতে আগুন ছোটালেও ফাইনালে তেমনভাবে জ্বলে উঠতে পারলেন না রাবাদা কিংবা নর্টজে। রোহিতের চওড়া ব্যাটে সহজেই ম্যাচ জিতে নিল মুম্বই। ৫১ বলে ৬৮ রান করলেন রোহিত শর্মা। পাঁচটা বাউন্ডারি আর চারটে ওভার বাউন্ডারিতে সাজানো হিটম্যানের ইনিংস। ৩৩ রানে অপরাজিত থাকেন ইশান কিষান। ৮ বল বাকি থাকতেই পাঁচ উইকেট হারিয়ে ফাইনাল জিতে নেয় মুম্বই।


দুবাইয়ে ফাইনালে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন দিল্লি ক্যাপিটালস অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার। তবে শুরুতেই বল হাতে ট্রেন্ট বোল্টের দাপটে কোনঠাসা হয়ে পড়ে দিল্লি। প্রথম বলেই স্টোইনিসকে ডাগআউটে ফেরত্ পাঠান কিউই পেসার। আইপিএলের ফাইনালে যা প্রথমবার হল। রাহানেকে ফেরান বোল্টই। ফর্মে থাকা শিখর ধাওয়ান ১৩ বলে ১৫ রান করে জয়ন্ত যাদবের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান।


এরপর দিল্লির রানকে টেনে তুলতে থাকেন শ্রেয়স আইয়ার এবং ঋষভ পন্থ। চতুর্থ উইকেটে ৯৬ রান যোগ করেন তাঁরা। ৩৮ বলে ৫৬ রান করেন পন্থ। এবারের আইপিএলের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি করলেন ফাইনালে। হেটমায়ার করলেন মাত্র ৫ রান। অক্ষর প্যাটেল ৯ রান করেন। অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার ৫০ বলে ৬৫ রানে অপরাজিত থাকেন। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৬ রান তোলে দিল্লি। মুম্বাইয়ের হয়ে তিন উইকেট নেন বোল্ট। ২টি উইকেট নেন কুল্টার নাইল।


করোনা মহামারির মধ্যেও আইপিএল। ক্রোড়পতি লিগ দেশে আয়োজন করতে পারেনি বিসিসিআই। বিশ্বের জনপ্রিয়তম ক্রিকেট লিগকে বাঁচাতে সৌরভ গাঙ্গুলির বোর্ড নিরাপদ ভেন্যু হিসেবে বেছে নেয় সংযুক্ত আরব আমিরশাহি। ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয় আইপিএলের ১৩ তম সংস্করণ। ১০ নভেম্বর শেষ হল আইপিএল।


ষষ্ঠবার আইপিএল ফাইনালে উঠে পাঁচ বার চ্যাম্পিয়ন হল মুম্বাই। ২০১৩, ২০১৫, ২০১৭,২০১৯, ২০২০ সালে আইপিএল ট্রফি ঘরে তুলল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস।




খেলাধুলা এর আরও খবর: